করোনাকালে ঘরে কত তাপমাত্রায় এয়ার কন্ডিশনার চালানো উচিৎ?

লাইফস্টাইল ডেস্ক
আপডেটঃ জুলাই ২২, ২০২০ | ৩:০০
লাইফস্টাইল ডেস্ক
আপডেটঃ জুলাই ২২, ২০২০ | ৩:০০
Link Copied!

একে করোনা আতঙ্কে ঘরবন্দী দশা, অন্যদিকে বেড়েই চলছে গরম। ঘর ঠাণ্ডা করতে এসি চালাচ্ছেন। এতে গরম থেকে স্বস্তি মিললেও ঘর ঠাণ্ডা করা এখন কতটা নিরাপদ জানেন কি?

তাহলে আমাদের করনীয় সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নের উত্তর চলুন জেনে নেই-

বাড়ির এয়ার কন্ডিশনারগুলি আদর্শভাবে ২৪-৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে চালানো উচিত এবং আর্দ্রতা ৪০-৭০ শতাংশের মধ্যে হওয়া উচিত। তবে, প্রাকৃতিক বাতাস প্রবেশের ব্যবস্থা থাকা উচিৎ। বায়ু চলাচল ও নিঃসরণের ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে এক্সস্টাস্ট ফ্যান থাকলে তা ছেড়ে রাখা অথবা না থাকলে জানালা ঈষৎ ফাঁকা রাখা।

বিজ্ঞাপন

এয়ার কুলার ব্যবহার করব কিভাবে?
ঠাণ্ডার জন্য অনেকে বাষ্পীভবন কুলার (মরুভূমি কুলার) ব্যবহার করে থাকেন। স্বাস্থ্য কর হাওয়া পেতে এবং ধুলাবালি দূরে রাখতে কুলারের সাথে বায়ু ফিল্টার ব্যবহার করা উচিৎ। আপনার কুলারটির বিশুদ্ধ বায়ুচলাচল নিশ্চিত করার জন্য বাইরে থেকে বাতাস ঘরে প্রবেশ করতে হবে এবং আর্দ্রতা হ্রাস করার জন্য জানালা খোলা রাখা খুবই গুরুত্বপূর্ণ।

ইলেকট্রিক ফ্যান ব্যবহারের ক্ষেত্রে করণীয় কি?
বৈদ্যুতিক পাখা ব্যবহারের ক্ষেত্রেও, সঠিক বায়ুচলাচল এবং নিষ্কাশনের জন্য জানালাগুলি খোলা রাখতে হবে। এক্সস্টাস্ট ফ্যান থাকলে তা ছেড়ে রাখুন।

তাহলে আমাদের করনীয় সম্পর্কিত কিছু প্রশ্নের উত্তর চলুন জেনে নেই-

বিজ্ঞাপন

ঘরে কত তাপমাত্রায় এয়ার কন্ডিশনার চালানো উচিৎ?
বাড়ির এয়ার কন্ডিশনারগুলি আদর্শভাবে ২৪-৩০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের মধ্যে চালানো উচিত এবং আর্দ্রতা ৪০-৭০ শতাংশের মধ্যে হওয়া উচিত। তবে, প্রাকৃতিক বাতাস প্রবেশের ব্যবস্থা থাকা উচিৎ। বায়ু চলাচল ও নিঃসরণের ব্যবস্থা নিশ্চিত করতে এক্সস্টাস্ট ফ্যান থাকলে তা ছেড়ে রাখা অথবা না থাকলে জানালা ঈষৎ ফাঁকা রাখা।

কেন্দ্রীয় শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা এবং কিছু সমস্যা
বিশেষজ্ঞদের মতে, উইন্ডো এয়ার কন্ডিশনারগুলি যেগুলি বাড়িতে ব্যবহৃত হয় তা ঠিক আছে, তবে কেন্দ্রীয় কুলিং ব্যবহার করার ক্ষেত্রে কিছু সমস্যা রয়েছে। এই কেন্দ্রীয় শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা মল, কর্পোরেট এবং সরকারী অফিস, হাসপাতাল ইত্যাদিতে ব্যবহৃত হয় এবং তা যদি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি, কাশি বা শ্বাস- প্রশ্বাসের সংস্পর্শে আসে তবে একই বিল্ডিংয়ের অন্যান্য ব্যক্তিতে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়তে পারে। এজন্য, বাইরের সাথে বায়ু সঞ্চালনের ব্যবস্থা রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ণ।

বিশেষজ্ঞদের মতে, উইন্ডো এয়ার কন্ডিশনারগুলি যেগুলি বাড়িতে ব্যবহৃত হয় তা ঠিক আছে, তবে কেন্দ্রীয় কুলিং ব্যবহার করার ক্ষেত্রে কিছু সমস্যা রয়েছে। এই কেন্দ্রীয় শীতাতপ নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা মল, কর্পোরেট এবং সরকারী অফিস, হাসপাতাল ইত্যাদিতে ব্যবহৃত হয় এবং তা যদি করোনা ভাইরাস আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি, কাশি বা শ্বাস- প্রশ্বাসের সংস্পর্শে আসে তবে একই বিল্ডিংয়ের অন্যান্য ব্যক্তিতে করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা বাড়তে পারে। এজন্য, বাইরের সাথে বায়ু সঞ্চালনের ব্যবস্থা রাখা অত্যন্ত গুরুত্বপুর্ণ।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

ট্যাগ:

শীর্ষ সংবাদ:
দৈনিক আদি বাংলা পত্রিকার ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক এমরান হোসেন রাজন চাঁদপুরে রেমাল মোকাবেলায় সতর্কতায় নৌ-পুলিশ মেঘনায় নিষিদ্ধ জালে মাছ ধরায় ৫ জেলে আটক গলায় ফাঁস দিয়ে রুয়েট শিক্ষার্থীর আত্মহত্যা অনলাইনে ইলিশ ক্রয়ে প্রতারক হতে সাবধান! ধেয়ে আসছে ঘূর্ণিঝড়, সংকেত বাড়লেও এখনো শান্ত উপকূল উপকূলীয় এলাকায় লঞ্চ চলাচল বন্ধের নির্দেশ নতুন কারিকুলামে ৭ ধাপে মূল্যায়ন শুধু বড়লোকেরাই নয়, দিনমজুররাও ফ্ল্যাটে থাকবে: প্রধানমন্ত্রী ভেকু দিয়ে মাটি কাটার দায়ে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা: সাত দিনের কারাদণ্ড সেন্দ্রায় যুব সমাজের উদ্যোগে মাদক বিরোধী মিনি ফুটবল টুর্নামেন্ট চাঁদপুরে ১১টির মধ্যে ৫ রেল স্টেশন বন্ধ, পরিত্যক্ত রেললাইন অবৈধ দখলে ফেব্রুয়ারির পরিবর্তে ডিসেম্বরে এসএসসি পরীক্ষা, সময় ৫ ঘণ্টা পেশাদার সাংবাদিকতা চর্চার পরিবেশ তৈরিতে কাজ করছে সরকার এমপি আজিমের খুন নিয়ে মুখ খুললেন সেই মূল পরিকল্পনাকারী শাহীন ফিলিস্তিনকে স্বীকৃতি দিয়েছে জাতিসংঘের ১৪৩ দেশ মতলব উত্তরে বিভিন্ন বাজারে বিক্রি হচ্ছে অপরিপক্ক লিচু হাইমচরে নদী ভাংতি শত পরিবারের মাঝে জেলা পরিষদের শ্যালো টিউবওয়েল বিতরণ  মতলব উত্তরে ব্যবসায়ীর ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার কচুয়ায় অগ্নিকাণ্ডে ১৮ টি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পুড়ে ছাই