দাম বেশি হলেও অ্যাপসে ধান বিক্রিতে অনীহা চাঁদপুরের কৃষকদের: সরকারিভাবে পূরণ হচ্ছে না লক্ষ্যমাত্রা

পপুলার বিডিনিউজ রিপোর্ট চাঁদপুর
আপডেটঃ মে ১৮, ২০২৪ | ৪:৫৪
পপুলার বিডিনিউজ রিপোর্ট চাঁদপুর
আপডেটঃ মে ১৮, ২০২৪ | ৪:৫৪
Link Copied!

দাম বেশি হলেও অ্যাপসে ধান বিক্রিতে অনীহা চাঁদপুরের কৃষকদের। সরকারের কাছে ধান বিক্রিতে নানান হয়রানির কথা বলছেন চাষীরা। তাই সরকারিভাবে ধান ক্রয়ের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হচ্ছে না। জেলা খাদ্য অধিদপ্তর বলছেন, প্রতিবছর ধান সরকারের কাছে ধান বিক্রি করতে লিফলেট বিতরণ ও মাইকিং করানো হচ্ছে। বিগত বছরগুলোতে এ অ্যাপসে ধান সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ করা যায়নি। এবার কিছুটা আশাবাদী।

চাঁদপুরে চলছে ইরি-বোরো ধানের মৌসুম। মাঠ থেকে ধান কাটা ও ধান সংগ্রহের ব্যস্ত সময় কাটছে কৃষক-কৃষাণীদের। সরকারিভাবে এবার ৩২ টাকা কেজি ধরে ধান ক্রয়ের ঘোষণা দিলেও কৃষকদের মাঝে রয়েছে অনীহা। ধান বিক্রিতে পরীক্ষা, যাতায়াত খরচ, সময় অপচয় ও কমিশন বাণিজ্যসহ নানান হয়রানির কথা বলছেন তারা। তাই সরকারের কাছে ধান বিক্রিতে আগ্রহী নন কৃষকেরা।

সদর উপজেলার বাগাদী এলাকার কৃষক আবদুল কাদের জানান, সরকার যে ধান কিনে, আমরা জানি। তবে সরকার যেভাবে ধান, আমরা অফিসে লইয়া গেছিলাম একবার। অফিসে ধান হেরা গেলসের ভিতরে হালাইয়া যেটা উপরে ভাইসা উঠবে, এটা নিবে না। যেটা নিচে হড়বো হেটা নিবো। এরুকম সাইরি ধান, মহিলারাতো এ রকম বাছনি করতে পারবো না।

বিজ্ঞাপন

ফরিদগঞ্জ উপজেলার কৃষক খায়ের মিয়া বলেন, এক কেজি ধান লইয়া নতুন বাজারের অফিসে গেছি, হেরা ধানেরে হানিতে বিজাইছে। হেরা দেখছে যে কিছু ধান ভাইসা উঠছে, হেরা কইছে এই ধান চলবে না। ধানেরে আরো শুকাইতে হইবো। ধানের শুকাইয়া আগা কাইটা হের পরে আনতে হাইবো। এরপরে অনেকেরে দেখছি, ধান লইয়া গেছে গাড়ী বইরা। এই ধান
হেগো পছন্দ অয়না। এই ধান ফেরত লইয়া আইছে। কৃষক জাব্বার হোসেন বলেন, একবার ধান বিক্রি করছিলাম। আমরা নিজেরা দিয়া আইয়ন লাগে। এরপরে কয় ধান শুকায় নাই। আবার আনছি, ধান শুকাইয়ছে। শুকাইয়া নিয়া আবার দিছি।
দেয়ার পরে ব্যাংকের টোকেন দিছে। ব্যাংককে গেছি, টাকা নাই। কয় পরে আইসা টাকা নিয়েন। একমাস পরে গিয়া টাকা
আনছি। এতো বদারেশনের তো দরকার নাই। সরকার প্রয়োজন হইলে ওনাগো প্রতিনিধি পাঠাইয়া ধান নেক। আমরা ধান
বেইছতে রাজি।

কৃষক নুরু মিয়া বলেন, সরকার যদি আমরা যেই পর্যায়ে ফসলের ধান হয়। মোটামুটি যেই পরিষ্কারটা করি। এই পরিষ্কারে যদি সরকার ধান নেয় তইলে, কৃষকও কিছু লাভবান হইবো, কৃষকও কিছু পাইবো। নিয়ম মেনে কৃষকেরা ধান দিতে না পারায় লক্ষ্যমাত্রা অর্জন করা সম্ভব হয়ে উঠে না। সরকারিভাবে ধান সংগ্রহের জন্য প্রতি বছর লিফলেট বিতরণ ও মাইকিং করা হচ্ছে। নিবন্ধিত কৃষকেরা ধান বিক্রির জন্য আবেদন করতে হয়। তারপর লটারীর মাধ্যমে

নির্বাচিত কৃষকদের কাছ থেকে ধান ক্রয় করার কথা জানান জেলা খাদ্য অধিদপ্তরের খাদ্য নিয়ন্ত্রক শ্যাম প্রসাদ চাকমা।

বিজ্ঞাপন

তিনি বলেন, নিবন্ধন করার পরে যে সমস্ত কৃষকগুলো লটারীর মাধ্যমে নির্বাচিত হইলো, দেখা গেলো সেখান থেকে শতকরা ১০ জনের মধ্যে ধান আছে। আর ৮০ বা ৯০ জনের মাঝে ধান নাই, বিক্রি করার মতো। কিন্তু এরা প্রকৃত কৃষক, নিবন্ধনকৃত। তাদের কাছে ধান নাই। আছে ১০ পারসেনের মতো। এটা একটা আমাদের সমস্যা।

চাঁদপুর জেলায় পাঁচটা উপজেলায় এই অ্যাপসের মাধ্যমে ধান সংগ্রহ করা হবে। এটা আমাদের উপজেলা পর্যায়ে খাদ্য বা এলএসডি দপ্তর থেকে লিফলেট বিলি করি এবং মাইকিং করি। যাতে আমাদের সরকারি খাদ্য শস্য সংগ্রহ টার্গেটটা আমরা ফুলফিল করতে পারি। এটা আমরা প্রতি বছর করে থাকি। জেলার আট উপজেলার প্রায় ১৮শ কৃষক থেকে তিন টন করে এবার ৬ হাজার ১শ ৬ মেট্রিক টন ধান সংগ্রহ করার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে খাদ্য অধিদপ্তর। এর মধ্যে চাঁদপুর সদর, ফরিদগঞ্জ, মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ ও শাহরাস্তি উপজেলায় এবার এ অ্যাপসের মাধ্যমে ধান ক্রয় করা হবে। বাকী তিনটি উপজেলা থেকে সরাসরি কৃষক থেকে ধান ক্রয় করার প্রস্তুতি চলছে।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

ট্যাগ: বিশেষ খবর

শীর্ষ সংবাদ:
ঈদ স্পেশাল ট্রেন চলাচল শুরু ঈদে ট্রাফিক শৃঙ্খলা-যানজট এড়াতে ২২ দফা নির্দেশনা পুলিশের বছরে দশ হাজার বেকারকে প্রশিক্ষণ দিয়ে চাকরির ব্যবস্থা করবে আস-সুন্নাহ ফাউন্ডেশন কুয়েতে ভবনে ভয়াবহ আগুন, নিহত অন্তত ৩৯ চাঁদপুরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, অটোরিকশা চালক নিহত প্রেমের বিয়ে, ইতালি যাওয়া স্ত্রী’র পরকীয়া মানতে পারেনি ইসমাইল মা-বাবাকে একসাথে হারালো ‘জমজ তিন সন্তান’ হাজীগঞ্জের সিএনজি পিকআপ সংঘর্ষে চারজন আহত জমে উঠছে মতলব উত্তরের কোরবানির পশুর হাট চাঁদপুরে ২৮ ধরণের দেশীয় ফল নিয়ে পুলিশের গ্রীষ্মকালীন উৎসব চাঁদপুরে বিক্রয় প্রতিনিধিকে অজ্ঞান করে টাকা ছিনতাই মতলব দক্ষিণ পানিতে ডুবে দুই বোনের মৃত্যু ১৭ দিনের ছুটিতে যাচ্ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রাজারগাঁও বঙ্গবন্ধু ও বঙ্গমাতা ফজিলাতুন্নেছা মুজিব ফুটবল টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হাইমচরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে গর্ভবতী নারী ও শাশুড়িকে পিটিয়ে রক্তাক্ত হাজীগঞ্জে বালুবাহী পিকআপ ও সিএনজি সংঘর্ষে স্বামী-স্ত্রীসহ তিনজন নিহত, এতিম হয়ে গেল তিন সন্তান জব্দ হওয়া হাজারো যানবাহন খোলা আকাশের নিচে, রাজস্ব হারাচ্ছে সরকার ঈদের আগেই প্রধানমন্ত্রীর উপহারের ঘরে উঠছে ১৮ হাজার পরিবার চাঁদপুরের পশুর হাট: আলোচনায় ফরিদগঞ্জের ১৫ লাখ টাকার ‘জায়েদ খান’ মতলবে ঈদ সামনে রেখে গরুকে খাওয়ানো হচ্ছে নিষিদ্ধ ওষুধ