ভিক্ষুকের বসতঘর ভেঙ্গে সম্পত্তি দখল করলো সাবেক আনসার কমান্ডার শাহআলম

মজিব পাটওয়ারী
আপডেটঃ সেপ্টেম্বর ৪, ২০২০ | ১০:৫০
মজিব পাটওয়ারী
আপডেটঃ সেপ্টেম্বর ৪, ২০২০ | ১০:৫০
Link Copied!
ভিক্ষুকের বসতঘর ভেঙ্গে সম্পত্তি দখল করলো আনসার কমান্ডার শাহআলম বেপারী।
বৃহস্পতিবার হাজীগঞ্জ উপজেলার ৬নং বড়কুল ইউনিয়নের এন্নাতলী গ্রামের প্রফেসর বাড়ীর ভিক্ষুক শুক্কুরীর বসতঘর ভেঙ্গে সম্পত্তি দখল করলো সাবেক আনসার কমান্ডার শাহআলম। এ নিয়ে এলাকায় জনমনে অসেন্তোষ প্রকাশ করেন।
 শুক্রবার বিকালে সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, শুক্কুরীর বসতভিটা থেকে জোরপূর্বক ঘর সরিয়ে দুরে স্থানান্তর করা হয়। স্থানান্তরকালে ভিক্ষুক শুক্কুরী বাধা প্রধান করলে তাকে মারতে তেড়ে আসেন সম্পত্তিলোভী শাহ্-আলম।
শুক্কুরী কান্নাজড়িত কন্ঠে পপুলার বিডিনিউজকে বলেন, তার স্বামী তিন সন্তান রেখে মারা যান। তারপর থেকে ছোট দুই ছেলে ও এক মেয়েকে আগলে রাখেন। মানুষের ধারে ধারে হাত পেতে দু’মুঠো খাওয়ার তুলে দেন সন্তানদের মুখে। যে ঘরে শুক্কুরী থাকেন, সে ঘরটিও এলাকার বিশিষ্ট শিল্পপতি হাছান।
শুক্কুরী জানান, শাহ্-আলম ওয়ারিশ সূত্রে এই সম্পত্তির মালিক দাবি করে প্রতিদিনই আমাকে মারতে আসে। আজ সকালে আমাকে মারতে আসে এ ঘটনাটি শুনে শুক্কুরী দু’বোন জয়নব ও জেসমিন আসে। জয়নব ও জেসমিন বলেন, আমার বোনকে অসহায় পেয়ে এই বসতভিটা থেকে উচ্ছেদ করতে উঠে পড়ে লাগে এবং মারতে আসে।
এ বিষয়টি স্হানীয়রা জানলে সমাধান করা চেষ্টা করেও ব্যার্থ হয়। স্হানীয় সালিশদার রুহুল আমিন পাটওয়ারী ও কবির হোসেন পপুলার বিডিনিউজ ডটকমকে জানান, শাহ্-আলম এই সম্পত্তি তার ক্রয়কৃত বলে দাবি করেন। কিন্তু কিভাবে বসতভিটা ওয়ারিশ সূত্রে ক্রয় করলো সেটা বোধগম্য হচ্ছে না।
শালিশদাররা বলেন, ওয়ারিশের পুকুরে ও মাঠে সম্পত্তি থাকা সত্ত্বেও শাহআলম জোরপূর্বক ক্ষমতার দাপটে ভিক্ষুকের বসতভিটা দখল করে। সম্পত্তি বিক্রিদাতা খায়রুন নেছা বেঁচে নেই।

এ বিষয়ে শাহ্-আলম বলেন,  তার ফুফুর কাছ থেকে দু’শতক সম্পত্তি দু’লক্ষ টাকায় খরিদ করে।

এলাকাবাসী বলেন, শুক্কুরী খুব অসহায় তিনটি সন্তানের মুখে দু’মুঠো খাওয়ার তুলে দেয়ার জন্য মানুষের দারে দারে হাত পাততে হয়। আজ জোর পূর্বক এই শাহ্-আলম শুক্কুরীর বসতভিটা থেকে সরিয়ে দিচ্ছে। সেই ঘরটিও করে দিয়েছে এলাকাবাসী।
ভিক্ষুক হওয়ায় শুক্কুরী আইনের আশ্রয়ও নিতে পারছে না।

সংশ্লিষ্ট সংবাদ:

ট্যাগ:

শীর্ষ সংবাদ:
দশ মিনিটে বিয়ে ১ মিনিটে বিচ্ছেদ নোয়াখালীতে এটিএম বুথের সামনে মিলল ৯৬ বোতল ভারতীয় মদ, কারাগারে দুই মাদক বিক্রিতে বাধা দেওয়ায় ইউপি সদস্যের বাড়িতে অগ্নিসংযোগ মতলব উত্তর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সেবার মান নিয়ে নানা প্রশ্ন!! আগামীকাল হাজীগঞ্জ’সহ ২৪ উপজেলায় ভোট হবে ইভিএমে বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত জাহিন কোরআন প্রতিযোগিতায় প্রথম ইরানের নতুন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আলী বাগেরি কানি উড়োযান বিধ্বস্ত হয়ে মারা যান যেসব রাষ্ট্র ও সরকার প্রধানরা প্রেসিডেন্টের মৃত্যুতে ইরানে এক সপ্তাহ খেলা স্থগিত কঠোরভাবে বাজার মনিটরিং শুরুর নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর চাঁদপুরে তিন উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোটকেন্দ্রে পাঠানো হচ্ছে সরঞ্জাম চাঁদপুরে নির্বাচনী আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত ব্রিফিং প্যারেড চাঁদপুরে নদী উপকূলীয় নির্বাচনী এলাকায় কোস্টগার্ডের মহড়া জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সহ ১৩ ম্যাজিস্ট্রেট :  ১৫ মোবাইল টিম ও ২ প্লাটুন বিজিবি মাঠে বজ্রপাতে ৩ শ্রমিকের মৃত্যু, আহত ৪ প্রেমিকা বিয়ের চাপ দেওয়ায় ভারতে পালালেন ছাত্রলীগ নেতা লঘুচাপ ও বৃষ্টি নিয়ে আবহাওয়ার নতুন বার্তা তাপদাহে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ক্লাস পরিচালনায় নতুন নির্দেশনা ইরানের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাইসি হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় নিহত চাঁদপুর বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে মিথ্যা প্রচার, থানায় জিডি